الانشاء : حُسْنُ الْخُلُقِ أَوْ مَكَارِمُ الْأَخْلَاقِ أَوْ الْأَخْلَاقُ الْكَرِيمَةُ أَوْ الاخلاق الْفَاضِلَةُ أَوْ الْأَدَبُ وَالْأَخْلَاقِ | রচনা : সচ্চরিত্র | Alim Arabic 2nd Paper - আলিম আরবি দ্বিতীয় পত্র | Class Alim (الصف العالم)

(toc)

  حُسْنُ الْخُلُقِ أَوْ مَكَارِمُ الْأَخْلَاقِ أَوْ الْأَخْلَاقُ الْكَرِيمَةُ أَوْ الاخلاق الْفَاضِلَةُ أَوْ الْأَدَبُ وَالْأَخْلَاقِ

الْمُقَدِّمَةُ :

 الْحَمْدُ لِلّهِ الَّذِى اَمَرَنَا أَنْ نَتَخَلَقَ حُسنِ الخُلُقِ، وَالصَّلَاةُ والسلام عَلَى النَّبِي الَّذِى بُعِدَّ لِيُتَمِّمَ مَكَارِمَ الْأَخْلَاقِ، وَعَلَى الهِ وَأَصْحَابِهِ الَّذِينَ هُمْ أُولُو الْأَخْلَاقِ الطَّيِّبَةِ.

 معنى حُسْنِ الْخُلُقِ :

 مَعْنَى الْحُسْنِ فِى اللُّغَةِ : الْجَمَالُ، وَالْخُلُق  في اللُّغَةِ : الْعَادَةُ وَفِي الْاِصْطِلاح : حُسْنُ الْخُلُقِ هُوَ الْإِنصاف بالصِّفَاتِ الْمَحْمُودَةِ وَالاِمْتِنَالُ بِاَوَامِرِ اللهِ وَرَسُولِ وَالْإِجْتِنَابُ عَمَّا نَهَى اللَّهُ عَنْهُ وَرَسُولُهُ.

مِعْيَارُ حُسنِ الْخُلُقِ :

 مِعْيَارُ حُسنِ الْخُلُقِ هُوَ اللهُ تَعَالَى، فَإِنَّهُ قَالَ : صِبْغَةُ اللهِ وَمَنْ أَحْسَنُ مِنَ اللهِ صِبْغَةً، ثُمَّ أَخْلَاقُ رَسُولِ اللهِ ﷺ. قَالَ تَعَالَى : لَقَدْ كَانَ لَكُمْ فِي رَسُولِ اللَّهِ أَسْوَةٌ حَسَنَةٌ وَقَالَ النَّبِيُّ ﷺ : "بُعِثْتُ لِانْتِمَ مَكَارِمَ الْأَخْلَاقِ".

طَرِيقُ تَحْصِيلِ حُسْنِ الْخُلُقِ :

هُوَ اتِّباعُ أَخْلَاقِ النَّبِي ﷺ ، وَالْمَدْرَسَة بيتُ لِتَرْبِيَةِ حُسنِ الْخُلُقِ وَالْوَالِدُ وَالأم والاساتذة مُعَلِمُوا حُسْنِ الْخُلُقِ.

أَهَمِّيَّةُ حُسن الخُلقِ :

لِحُسْنِ الْخُلُقِ اَمَمَيَّةُ كَبِيرَةُ فِي حَيَاةِ الْإِنْسَانِ وَهُوَ فَرْضٌ قَبْلَ جَمِيعِ الْفَرَائِضِ. يَبْقَى الْقَوْمُ وَالْامَّةُ مَعَ بَقَاءِ أَخْلَاقِهِمْ وَيَهْلِكُونَ بِهَلَاكِ أَخْلَاقِهِمْ. كَمَا قَالَ الشَّاعِرُ احْمَدُ شَوْقِيٌّ :  إِنَّمَا الأهم بقوا أخْلَافَهُمْ مَا بَقِيَتْ * فَإِنْ هُم ذَهبَتْ اخْلَاقَهُم ذَهَبُوا . 

الأمورُ الَّتِي تَشْمُلُ حَسْنَ الْخُلَقِ :

حُسنُ الْخُلُقِ تَشْمُلُ الحياة والصبر والحلم والكرم والفَضْل والحِكْمَةَ والشَّجَاعَةَ والتوكل والعفو وَإِيْفَاءَ الْوَعْدِ وَالْإِحْسَانَ وَالْإِخْلَاصَ وَالشُّكْرَ وَأَدَاءَ الْوَاجِبَاتِ وَالْفَرَائِضَ وَتَوْقِيرَ الْكِبَارِ وَرَحْمَ الصّغَارِ وَالصَّدْقَ وَكَظْمُ الْغَيْظِ وَالْاجْتِنَابَ عَنِ الشرورِ وَالسَّيِّئَاتِ وَغَيْرَ ذَلِكَ.

 فَضِيلَةٌ حُسنِ الْخُلُقِ :

لِحُسْنِ الْخُلُقِ فَضْلُ كَثِيرُ إِنَّهُ يُكْمِلُ الْإِيْمَانَ. كَمَا قَالَ النَّبِيُّ ﷺ : "أَكْمَلُ الْمُؤْمِنِيْنَ إِيْمَانًا أَحْسَنُهُمْ خُلُقًا، وَهُوَ مِيزَانُ الْمَجْدِ وَالْكَرَمِ بَيْنَ النَّاسِ، وَيَجْعَلُ الْإِنْسَانَ مَحْمُودًا وَمَحْبُوبًا عِنْدَ المُجْتَمَعِ. قَالَ عَلَيْهِ السَّلَامُ : "إِنَّ مِنْ خِيَارِكُمْ أَحْسَنُكُمْ أَخْلَاقًا". 

الْخَاتِمَةُ :

حُسْنُ الْخُلُقِ وَصْفُ مِنْ أَوْصَافِ الرَّسُولِ وَأَوْصَافِ الصَّالِحِيْنَ وَاللهُ أَمَرَنَا بِذلِكَ، فَعَلَيْنَا أَنْ نَتَّصِفَ بِوَصْفِ حُسْنِ الخُلُقِ وَنَجْتَنِبُ الْأَخْلَاقَ السَّيِّئَةَ -

সচ্চরিত্র

উপস্থাপনা :

সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য, যিনি আমাদেরকে সচ্চরিত্রে চরিত্রবান হওয়ার আদেশ দিয়েছেন। দরূদ ও সালাম বর্ষিত হোক নবী কারীম (স)-এর ওপর, যিনি উত্তম চরিত্রসমূহের পরিপূর্ণতা দানের উদ্দেশ্যে প্রেরিত হয়েছেন। আর তাঁর পরিবার ও সাহাবীদের ওপর, যাঁরা উত্তম চরিত্রের অধিকারী।

حُسنُ الْخُلُقِ -এর অর্থ :

حُسنُ শব্দের আভিধানিক অর্থ হলো সৌন্দর্য। আর  الْخُلُقِ শব্দের আভিধানিক অর্থ হলো স্বভাব। পরিভাষায় حُسنُ الْخُلُقِ হলো আল্লাহ ও রাসূল (স)-এর নির্দেশিত বিষয়াবলি মেনে চলা এবং আল্লাহ ও রাসূল (স)-এর নিষেধকৃত বিষয়াবলি থেকে বিরত থাকা।

সচ্চরিত্রের মানদণ্ড :

সচ্চরিত্রের মানদণ্ড হলো আল্লাহ তায়ালা। তিনি ইরশাদ করেন, “আল্লাহর রঙে রঙিন হও আর কে রঙে আল্লাহর চেয়ে উত্তম”। অতঃপর রাসূল (স)-এর চরিত্র। আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, “তোমাদের জন্য রাসূল (স)-এর মাঝে উত্তম আদর্শ রয়েছে”। রাসূল (স) ইরশাদ করেন, "আমি উত্তম চরিত্রাবলির পূর্ণতা দান করতে প্রেরিত হয়েছি”।

সচ্চরিত্র অর্জনের পদ্ধতি :

সচ্চরিত্র অর্জনের পদ্ধতি হলো- নবী কারীম (স)-এর চরিত্রের অনুসরণ করা। আর মাদরাসা হলো সচ্চরিত্র শিক্ষা দেওয়ার প্রতিষ্ঠান এবং শিক্ষক হলো পিতামাতা ও শিক্ষকগণ।

সচ্চরিত্রের গুরুত্ব :

মানবজীবনে সচ্চরিত্রের অত্যধিক গুরুত্ব রয়েছে। এটা সর্বাগ্রে ফরয ও আবশ্যিক কাজ। চরিত্র টিকে থাকার মাধ্যমে জাতি টিকে থাকে আর চরিত্র বিনষ্ট হওয়ার কারণে জাতি ধ্বংস হয়। যেমন কবি আহমদ শাওকী বলেন-

 চরিত্র বেঁচে থাকা পর্যন্ত জাতিসমূহ বেঁচে থাকে,
 চরিত্র ধ্বংস হলে তারাও ধ্বংস হয়ে যায়।

উত্তম চরিত্র যে সকল বিষয়কে অন্তর্ভুক্ত করে :

উত্তম চরিত্র লজ্জা, ধৈর্য, সহনশীলতা, বদান্যতা, সম্মান, জ্ঞান, বীরত্ব, তাওয়াক্কুল, ক্ষমা, প্রতিশ্রুতি পূরণ, দয়া, নিষ্ঠা, কৃতজ্ঞতা, ওয়াজিব ও ফরযসমূহ আদায়, বড়দের শ্রদ্ধা, ছোটদের স্নেহ, সত্যবাদিতা, ক্রোধ সংবরণ এবং খারাপ ও মন্দ বিষয়াদি পরিহার ইত্যাদি বিষয়কে অন্তর্ভুক্ত করে।

উত্তম চরিত্রের ফযিলত :

উত্তম চরিত্রের বিরাট ফযিলত রয়েছে। এটি ঈমানকে পূর্ণতা দান করে, যেমন নবী কারীম (স) ইরশাদ করেন, “পূর্ণ ঈমানদার সে যার চরিত্র সর্বোত্তম”। এটি মানুষের মাঝে মর্যাদা ও সম্মানের মাপকাঠি। এটি সমাজে মানুষকে প্রশংসিত ও প্রিয়ভাজন করে তোলে। নবী কারীম (স) ইরশাদ করেন, “তোমাদের মাঝে সেই শ্রেষ্ঠ যার চরিত্র সর্বোত্তম” ।

উপসংহার :

উত্তম চরিত্র রাসূল (স) ও সালেহীনদের একটি গুণ। আল্লাহ আমাদের এ ব্যাপারে নির্দেশ করেন। কাজেই আমাদের উচিৎ উত্তম চরিত্রের গুণে গুণান্বিত হওয়া এবং মন্দ চরিত্র বর্জন করা।


#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !