الانشاء : خَيْرُ الْأمور أوسَطهَا | রচনা : মধ্যপন্থাই সর্বোত্তম | Alim Arabic 2nd Paper - আলিম আরবি দ্বিতীয় পত্র | Class Alim (الصف العالم)

الانشاء : خَيْرُ الْأمور أوسَطهَا    |  রচনা : মধ্যপন্থাই সর্বোত্তম | Alim Arabic 2nd Paper - আলিম আরবি দ্বিতীয় পত্র | Class Alim (الصف العالم)
(toc)

  خَيْرُ الْأمور أوسَطهَا  

الْمُقَدِّمَةُ :

الْحَمْدُ لِلَّهِ الَّذِي جَعَلَ هَذِهِ الْاُمَّةً وَسَطًا وَصَلَوْتُ اللَّهِ وَسَلَامُهُ عَلَى نَبِتِهِ مُحَمَّدٍ  ﷺ وَعَلَى آلِهِ وَصَحْبِهِ وَمَنْ تَبِعَهُمْ إِلَى يَوْمِ الدِّينِ. 

مَعْنَى الْوَسَطِ :

مَعْنَى الْوَسَطِ خَيْرُ الشَّيْءِ وَاعْدَلَهُ، وَمِنْ هُنَا قَالَ الْعُلَمَاء إِنَّ الْحَقِّ وَالْعَدْ دَائِمًا يَكُونُ مَعَ الْوَسَطِ فَإِنَّهُ بَيْنَ الْأَفْرَاطِ وَالتَّفْرِيطِ، قَالَ الشَّاعِرُ :
لَا تَغِلُّ فِي شَيْءٍ مِنَ الْأَمْرِ وَاقْتَصِدْ . كَلَّا تَرَى فِي قَصْدِ الْأُمُورِ نَعِيمٌ. 

الْإِسْلَامُ دِينُ الْوَسَطِ :

الْإِسْلَامُ دِينُ الْوَسَطِ قَدْ أَخَذَ الْإِسْلَامُ الْوَسْطِيَّةَ فِي الْإِحْكامِ الشَّرْعِيَّةِ. قَالَ تَعَالَى : "وَكَذَلِكَ جَعَلْنَاكُمْ أُمَّةً وَسَطًا". جَاءَ الْإِسْلَامُ بِشَرِيعَةٍ مُتَوَازِنَةٍ فِى أَحْكَامِهَا فَجَعَلَ كُلَّ شَيْءٍ فِي مَكَانِهِ. لَا إِفْرَاطَ فِيهِ وَلَا تَفْرِيْطَ كَمَا جَعَلَ الْيَهُودُ وَالنَّصَارَى فِي دِينِهِمْ وَأَقَامَ الْعَدْ حَيْثُ جَعَلَ لِلْمَرْأَةِ حَقَ الْمِيْرَاتِ وَكَانَتْ تُحْرَمُ فِي الْجَاهِلِيَّةِ

نموذج الْوَسَطِ فِى الْإِسْلَامِ :

إِنَّ الْمُسْلِمِينَ يَعْتَقِدُونَ فِي الْأَنْبِيَاءِ وَالرُّسُلِ اِعْتِقَادًا مُتَوَسَطًا. فَلَا يَغِلُّونَ فِيهِمْ كَمَا غَلَّتِ النَّصَارَى. اتَّخَذُوا أَحْبَارَهُمْ وَرُهْبَانَهُمْ وَعِيسَى بْنَ مَرْيَمَ أَرْبَابًا مِنْ دُونِ اللَّهِ. وَلَا يَجِنُّونَ عَلَيْهِمْ كَمَا جَقَتِ الْيَهُودُ. كَانُوا يَقْتُلُونَ الْأَنْبِيَاء بِغَيْرِ حَقٍ وَيَقْتُلُونَ الَّذِينَ يَأْمُرُونَ بِالْقِسْطِ مِنَ النَّاسِ. 

الْوَسَطِيَّةُ قَاعِدَةُ عَامَّةً :

لَيْسَتْ قَاعِدَةُ الوَسْطِيَّةِ خَاصَّةٌ فِي أُمُورِ الدِّينِ وَالْاعْتِقَادِ فَقَط وَإِنَّمَا هِىَ عَامَّةٌ شَامِلَةُ كُلَّ نَواحِي الْحَيَاةِ قَالَ تَعَالَى : وَاقْصِدْ فِي مَشْيِكَ.

ذَمُّ الإفراط :

الْإِفْرَاطُ وَالْغُلُوُّ مَمْنُوعَ فِي الْإِسْلَامِ قَالَ النَّبِيُّ ﷺ لَا تُشَيِّدُوا عَلَى أَنفُسِكُمْ فَيُشَدُ اللهُ عَلَيْكُمْ

ذَمُّ التَّفْرِيطِ :

إِنَّ الْإِسْلَامَ ذَمَّ الْإِفْرَاطَ وَالْغُلُو كَذلِكَ ذَمَّ التَّفْرِيْطَ وَالْإِهْمَالَ . وَقَالَ تَعَالَى : "اقْتَرَبَ لِلنَّاسِ حِسَابَهُمْ وَهُمْ فِى غَفْلَةٍ مُعْرِضُونَ". 

الْخَاتِمَةُ :

إِنَّ الْوَسْطَ هُوَ الْمَنْهَجُ الَّذِي اثْنى عَلَيْهِ تَعَالَى أُمَّةَ مُحَمَّدِ : ﷺ هُمْ أُمَّةٌ مُقْتَصِدَةً وَكَثِيرٌ مِنْهُمْ سَاءَ مَا يَعْمَلُونَ".

 মধ্যপন্থাই সর্বোত্তম

উপস্থাপনা :

সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য, যিনি এ জাতিকে মধ্যপন্থি হিসেবে সৃষ্টি করেছেন। দরূদ ও সালাম বর্ষিত হোক নবী মুহাম্মদ (স)-এর ওপর এবং তাঁর পরিবার, সাহাবী ও বিচার দিবস পর্যন্ত যারা তাঁর অনুসরণ করবে তাদের ওপর।

وَسَط.... -এর অর্থ :

وَسَط... -এর অর্থ- উত্তম ও সঠিক বিষয়। এ থেকে আলেমগণ বলেন, হক ও ইনসাফ সবসময় মধ্যপন্থার সাথে থাকে। কেননা এটা হ্রাস ও বৃদ্ধির মাঝামাঝি থাকে। কবি বলেন-

তুমি কোনো বিষয়ে বাড়াবাড়ি করো না; বরং মধ্যপন্থা অবলম্বন কর। কেননা মধ্যপন্থা অবলম্বনে কখনো তুমি নিন্দনীয় কিছু দেখতে পাবে না।

ইসলাম মধ্যপন্থি দ্বীন :

ইসলাম তার বিধান ও শরয়ী নীতিতে মধ্যপন্থা গ্রহণ করেছে। আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, “অনুরূপভাবে আমি তোমাদেরকে মধ্যপন্থি জাতি করেছি”। ইসলাম ভারসাম্যপূর্ণ আহকামবিশিষ্ট শরীয়ত নিয়ে এসেছে। প্রত্যেক জিনিসকে যথাস্থানে রেখেছে। যার মাঝে নেই কঠোরতা ও শৈথিল্য যেমনটি ইহুদী ও নাসারা তাদের ধর্মে করে থাকে। ইসলাম ন্যায় প্রতিষ্ঠা করেছে। যেমন- নারীর জন্য মীরাসের অধিকার বাস্তবায়ন করেছে। অথচ জাহেলী যুগে তাকে মীরাস থেকে বঞ্চিত করা হতো।

ইসলামে মধ্যপন্থার নমুনা :

মুসলমানগণ নবী ও রাসূলদের ক্ষেত্রে মধ্যপন্থায় বিশ্বাস পোষণ করেন। তাই তারা নাসারাদের মতো বাড়াবাড়ি করে না। তারা তাদের যাজক ও পাদ্রীদেরকে এবং ঈসা ইবনে মারইয়ামকে আল্লাহর পরিবর্তে রব হিসেবে গ্রহণ করেছে। আর তারা ইহুদিদের মতো রূঢ় আচরণ করে না। তারা তাদের নবী ও সৎকাজের আদেশকারীদেরকে অন্যায়ভাবে হত্যা করত।

মধ্যপন্থা সর্বজনীন নীতি :

মধ্যপন্থা ধর্মীয় বিষয়াদি ও বিশ্বাসের মাঝে সীমিত নয়; বরং এটা জীবনের সকল বিষয়কে অন্তর্ভুক্তকারী। আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, “তুমি মধ্যমভাবে চলাচল করত।

বাড়াবাড়র নিন্দা :

বাড়াবাড়ি ও সীমালঙ্কান ইসলামে নিষিদ্ধ। নবী কারীম (স) ইরশাদ করেন, “তোমরা তোমাদের ওপর কঠোরতা করো না, তাহলে আল্লাহ তোমাদের ওপর কঠোরতা আরোপ করবেন"।

শৈথিল্য প্রদর্শনের নিন্দা :

ইসলাম যেমন বাড়াবাড়ির নিন্দা করেছে, তেমনিভাবে শৈথিল্য ও অবহেলা করারও নিন্দা করেছে। আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেন, “মানুষের হিসাবের সময় খনিয়ে এসেছে। অথচ তারা তাদের ঔদাসীন্যে উপেক্ষা করে আছে।

উপসংহার:

মধ্যপন্থা সে পদ্ধতি, যার জন্য মহান আল্লাহ উম্মতে মুহাম্মদীর প্রশংসা করেছেন- “তাদের মাঝে কিছু লোক মধ্যপছি, আর তাদের অনেকেই মন্দ কাজ করেন ।



#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !