الانشاء : الحياء أَوْ الْحَيَاءُ شُعْبَةٌ مِنَ الْإِيْمَانِ | রচনা : লজ্জা | Alim Arabic 2nd Paper - আলিম আরবি দ্বিতীয় পত্র | Class Alim (الصف العالم)

الانشاء : الحياء أَوْ الْحَيَاءُ شُعْبَةٌ مِنَ الْإِيْمَانِ  |  রচনা : লজ্জা | Alim Arabic 2nd Paper - আলিম আরবি দ্বিতীয় পত্র | Class Alim (الصف العالم)
(toc)

الحياء أَوْ الْحَيَاءُ شُعْبَةٌ مِنَ الْإِيْمَانِ

 الْمُقَدِّمَةُ :

الْحَمْدُ لِلَّهِ الَّذِي أَمَرَنَا بِتَكْمِيلِ الْإِيْمَانِ وَالصَّلَوةُ وَالسَّلَامُ عَلَى النَّبِيِّ () الَّذِي جَعَلَ الحَيَاءَ جُزْءًا هَامَّا مِنْ أَجْزَاءِ الْإِيْمَانِ وَعَلَى آلِهِ وَأَصْحَابَة أَجْمَعِينَ. 

تَعْرِيفُ الْحَياءِ :

الْحَيَاء فِي اللُّغَةِ : القَبْضُ وَالْمَنْعُ : وَفِي الْإِصْطلاح : الْحَيَاهُ هُوَ تَغيير وانْكِسَار يَعْتَرِي الإنْسَانُ مِنْ خَوْفِ مَا يُعَابُ بِهِ وَيُنَم .. 

أهميَّةُ الحَياءِ :

الْحَيَاء مِنَ الصَّفَاتِ الْمَحْمُودَةِ وَالْأَخْلَاقِ الْفَاضِلَةِ الَّتِي لَا بُدَّ أَن يَتَّصِفَ بِهَا الْإِنْسَانُ، وَهُوَ جُزْءً هَامُّ مِنْ أَخْلَاقِ الْمُسْلِمِينَ، وَبِهِ يُكْمِلُ الْإِيْمَانَ لِهَذَا شَبَّهَ النَّبِيُّ () الْإِيْمَانَ بِالشَّجَرَةِ وَأَجْزَانُه بِالْأَعْصَانِ - وْ الحياء الغصن المهم - فَكَمَا أنَّ الشَّجَرَةَ تُكْمِلُ بِالْأَعْصَانِ كَذلِكَ الْإِيْمَانُ يُكْمِلُ بِالْحَيَاء. 

فَوَائِدُ الْحَياءِ :

صَاحِبُ الْحَياءِ لَا يَقَعُ فِي الْقَبَائِعِ الشَّرْعِيَّةِ والطبيعية، وَلَا يَرْتَكِبُ الْمُنْكَرَاتِ وَالْمَنْهِيَّاتِ. وَيَمْتَدِلُ بِالْمَعْرُوفَاتِ وَالْمَأْمُورَاتِ كَمَا حَقَهَا.

الْحَيَاءُ أَهمُّ صِفَةٍ إِنْسَانِيَّةٍ :

اَلْحَيَاهُ أَهَمُّ صِفَةٍ إِنْسَانِيَّةِ للنَّاسِ، وَهُوَ يَصُدُّ النَّاسَ عَنِ الْمَعَائِبِ الَّتِي يَتَمَزَّقُ بِهَا نِظَامُ الْعَالَمِ، كَالظُّلِمِ وَالْخِيانَةِ وَالْخِدَاعِ وَغَيْرُ ذَلِكَ، لأَنَّ صَاحِبَ الْحَيَاء يَتْرُكُ هَذِهِ الصَّفَاتِ الشَّيْعَةِ اسْتِحْيَاء مِنَ اللهِ تَعَالَى.

 الْحَيَاءُ مَانِعُ الْقَبَائِحِ وَالسَّيِّئَاتِ :

إِنَّ الْحَيَاءَ مَانِعُ الْقَبَائِحِ وَالسَّيِّئَاتِ وَهُوَ جُنَّةٌ لأَخْلَاقِ النَّاسِ، فَصَاحِبُ الحَياءِ يَسْتَحْيِي عَنْ جَمِيعِ الْقَبَائِحِ الشَّرْعِيَّةِ وَالْفِكْرِيَّةِ وَالطَّبِيعِيَّةِ وَيُشْتَاقُ إِلَى الْمَحَاسِنِ والمَعْرُوفَاتِ.
فَمَنْ لَا حَيَاءَ لَهُ يَفْعَلُ مَا يَشَاءُ وَلِهَذَا قَالَ النَّبِيُّ () : "إِذَا فَاتِكَ الْحَيَاء فَافْعَلْ مَا شِئْتَ".

الْحَيَاء شُعْبَةُ مِنَ الْإِيْمَانِ :

خَصَّ النَّبِيُّ () الْحَيَاءَ بِالذِّكْرِ لأَهَمِّيَّتِهَا بَعْدَ ذِكْرِ كَلِمَةٍ عَامَّةٌ تَشْمُلُ الْحَيَاء كَمَا يَقُولُ النَّبِيُّ () : "الْإِيْمَانُ يضَعُ وَسَبْعُونَ شُعْبَةٌ، أَفْضَلُهَا قَوْلُ لَا إِلَهَ إِلَّا اللهُ وَأَدْنَاهَا إِمَاطَةُ الأذى عَنِ الطَّرِيقِ، وَالْحَيَاءُ شُعْبَةُ مِنَ الْإِيْمَانِ". 

الْخَاتِمَةُ :

عَلَيْنَا أَنْ نَتَّصِفَ بِصِفَةِ الْحَيَاء وَنَسْتَحْيِي مِنَ اللَّهِ تَعَالَى فَنَمْتَيْلُ بِأَوَامِرِه وَنَجْتَنِبُ نَوَاهِيهِ.

লজ্জা

উপস্থাপনা :

সকল প্রশংসা মহান আল্লাহর, যিনি আমাদেরকে ঈমান পূর্ণ করার আদেশ করেছেন। দরুদ ও সালাম বর্ষিত হোক নবী কারীম (স)-এর প্রতি, যিনি লজ্জাকে ঈমানের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে সাব্যস্ত করেছেন, আর তাঁর পরিবার ও সকল সাহাবীর প্রতি।

الْحَيَاءُ - এর পরিচয় :

الْحَيَاءُ শব্দের আভিধানিক অর্থ- নিয়ন্ত্রণ ও বারণ। পরিভাষায়- দোষ ও নিন্দার পাত্র হওয়ার ভয়ে মানুষের মাঝে যে পরিবর্তন ও বিনয় প্রকাশ পায়, তাকে তিন তথা লজ্জা বলে।

লজ্জার গুরুত্ব :

লজ্জা একটি প্রশংসিত গুণ ও উন্নত চরিত্র, যা দ্বারা মানুষের গুণান্বিত হওয়া জরুরি। এটা মুসলমানদের একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্র। এর দ্বারা ঈমান পূর্ণ হয়। এ কারণে নবী কারীম (স) ঈমানকে গাছের সাথে এবং ঈমানের অঙ্গগুলোকে শাখার সাথে তুলনা করেছেন। লজ্জা একটি গুরুত্বপূর্ণ শাখা; যেমনি করে বৃক্ষ শাখা দ্বারা পূর্ণ হয় তেমনিভাবে ঈমানও লজ্জা দ্বারা পূর্ণ হয়।

লজ্জার উপকারিতা :

লজ্জাশীল ব্যক্তি স্বভাবজাত ও শরীয়তের দৃষ্টিতে মন্দ এমন কাজে লিও হয় না, অপছন্দনীয় ও নিষিদ্ধ কাজে জড়ায় না এবং সে সৎকাজ ও আদিষ্ট বিষয় যথাযথভাবে বাস্তবায়ন করে।

লজ্জা গুরুত্বপূর্ণ মানবিক গুণ :

লজ্জা একটি গুরুত্বপূর্ণ মানবিক গুণ। এটি মানুষকে সেসব দোষত্রুটি থেকে বিরত রাখে, যা বিশ্বের শৃঙ্খলা ছিন্নভিন্ন করে দেয়। যেমন- জুলুম, বোনত, প্রতারণা ইত্যাদি। কেননা লজ্জাশীল ব্যক্তি আল্লাহকে লজ্জা করত এ সকল ঘৃণ্য দোষ বর্জন করে।

লজ্জা মন্দে বাধা প্রদানকারী :

লজ্জা মন্দে ও খারাপ কাজে বাধা প্রদান করে। এটি মানবচরিত্রের জন্য ঢালস্বরূপ। লজ্জাশীল ব্যক্তি শরয়ী চিন্তাবিষয়ক ও স্বভাবজাত যাবতীয় মন্স কাজের ব্যাপারে লজ্জাবোধ করে। আর সে ভালো ও উত্তম কাজে আগ্রহী হয়। যার লজ্জা নেই সে যা ইচ্ছা করে। এ কারণে নবী কারীম (স) ইরশাদ করেছেন- "যখন তোমার পদ্মা চলে যাবে, তখন তুমি যা ইচ্ছা কর"।

লজ্জা ঈমানের একটি শাখা :

লজ্জার গুরুত্বের কারণে নবী কারীম (স) লজ্জাকে অন্তর্ভুক্তকারী সাধারণ শব্দে ব্যবহারের পর বিশেষভাবে লজ্জার কথা উল্লেখ করেছেন। কেমন নবী কারীম (স) ইরশাদ করছেন, "ঈমানের সত্তরেরও অধিক শাখা রয়েছে। তন্মধ্যে সর্বোত্তমটি হলো লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ' এবং সর্বনিম্নটি হলো রাস্তা থেকে কষ্টদায়ক জিনিস সরিয়ে দেওয়া। আর লজ্জা ঈমানের অন্যতম শাখা”।

উপসংহার:

আমাদের উচিত হলো, লজ্জার গুণে গুণান্বিত হওয়া, আল্লাহকে লজ্জা করে তাঁর আদেশগুলো মেনে চলা এবং তাঁর নিষিদ্ধ বিষয়সমূহ পরিহার করা।


#buttons=(Accept !) #days=(20)

Our website uses cookies to enhance your experience. Learn More
Accept !